বসবাসযোগ্য ঢাকা উপহার দিতে চান ইশরাক

প্রথম সময়: ডেস্ক নিউজ | সংবাদ টি প্রকাশিত হয়েছে : 10. January. 2020 | Friday

এই প্রতিবেদন শেয়ার করুন

প্রথম সময় ডেস্ক:

দল ও দেশের জন্য কাজ করব ঢাকা দক্ষিণ সিটিতে বিএনপির মনোনীত মেয়র প্রার্থী প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে উত্তর গেইট থেকে ইশরাক আনুষ্ঠানিক নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেন। শুক্রবার জুম্মার নামাজ শেষে তিনি নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু ও চেয়ারপারসনের উপদেষ্ঠা আবদুস সালাম, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, শহীদুল ইসলাম বাবুল, যুবদলের সিনিয়র সহ সভাপতি মোরতাজুল করিম বাদরু, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদির ভূইয়া জুয়েল, ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি রাজিব হাসান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসানসহ কেন্দ্রীয় নেতারা।

সাংবাদিকদের ইশরাক হোসেন বলেন, দেশবাসীর কাছে দোয়া চাচ্ছি। নির্বাচনের মাধ্যমে আমরা আন্দোলন সংগ্রামে অবতীর্ণ হয়েছি। এই আন্দোলন খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য, গণতন্ত্রের মুক্তির জন্য। এর মাধ্যমে খালেদা জিয়ার মুক্তি তরান্বিত হবে। ইনশাল্লাহ, বিজয় আমাদের আসবেই।

ইশরাক হোসেন আসন্ন নির্বাচনে মেয়র পদে তাকে ধানের শীষ প্রতীকে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন, আমার ওপর ভোটাররা আস্তা রাখলে জনগণের কেড়ে নেওয়া মালিকানা জনগণের কাছে ফিরিয়ে দিবো। আমি সবার বসবাসযোগ্য নিরাপদ ঢাকা উপহার দিবো। এ সময় তিনি তার মরহুম বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা সাদেক হোসেন খোকার কথা উল্লেখ করে বলেন বলেন, আমার মরহুম বাবার মতই এলাকবাসীর সুখ-দুঃখে তাদের পাশে থাকবো।প্রচারণার শুরুতে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভোট অনুষ্ঠানের জন্য দোয়া পরিচালনা করেন ওলামা দলের আহ্বায়ক মওলানা শাহ মো. নেছারুল হক। পরে ইশরাক ও সিনিয়র নেতাদের সঙ্গে কয়েক হাজার নেতাকর্মী মসজিদ থেকে বেরিয়ে ধানের শীষ প্রতীকের মিছিল বের করেন। তারা নেচে-গেয়ে নানান ছন্দের স্লোগান তুলে বিএনপির পক্ষে ভোট চান। এসব স্লোগানের মাধ্যমে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, গণতন্ত্রের মুক্তির জন্য নগরবাসীর কাছে ভোট চান। ঢাকার স্থায়ীয় বাসিন্দা হিসেবে বিএনপির মেয়র প্রার্থীকে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানানো হয়।

মিছিলের অগ্রভাগে থেকে শতাধিক নেতাকর্মী রাস্তার দুই পাশে পথচারী, ব্যবসায়ী এবং বাসাবাড়িতে লিফলেট বিতরণ করেন। ইশরাক হোসেন হাত তুলে রাস্তার পাশে, ভবনে উৎসুক সাধারণ মানুষদের কাছে ভোট চান।

পথচারীদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে তার জন্য ভোট ও দোয়া চান। এ সময় বেশ কয়েকজন বয়স্ক মানুষ ইশরাকের মাথায় হাত দিয়ে দোয়া করেন। বায়তুল মোকারম থেকে শুরু হয়ে পল্টন মোড় ঘুড়ে হাউজ বিল্ডিং, পুরানা পল্টন, নয়াপল্টন, ফকিরাপুল, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সালাম সড়ক হয়ে আরামবাগ, মতিঝিল হয়ে গোপীবাগ পর্যন্ত গণসংযোগ করা হয়। স্বামীবাগ মসজিদে মাগরিব নামাজের পর সায়েদাবাদ, কে এম দাস লেন ও গোপীপবাগের বিভিন্ন সড়কে গণসংযোগ করেন ইশরাক। বিএনপির এ সময়ে বিএনপি নেতৃবৃন্দের সঙ্গে তার ভাই ইশফাক হোসেনকেও দেখা গেছে। গণসংযোগকালে তিনি স্থানীয় জনসাধারনের সাথে কুশল বিনিময় করেন। সকাল ইশরাক হোসেন ১১টার দিকে গোপীবাগের সাদেক হোসেন খোকা কমিউনিটি সেন্টারে ঢাকা দক্ষিণের রির্টানিং কর্মকর্তা আবদুল বাতেনের কাছ থেকে প্রতীক বুঝে নেন। পরে তিনি ছোট ভাই ইশফাক হোসেনকে সঙ্গে নিয়ে জুরাইনে তার বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা, অবিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের টানা দুই বারের মেয়র ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সদ্য প্রয়াত সাদেক হোসেন খোকার কবর জিয়ারত করেন। আগামীকাল শনিবার খিলগাঁও কমিউনিটি সেন্টারের সামনে থেকে গণসংযোগ শুরু করে ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডে গণসংযোগ করবেন ইশরাক

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৭৪ বার




Archives