‘মুজিব বর্ষে বি এন পিকেও আমন্ত্রণ জানানো হবে সাথে ভারতকে আমন্ত্রণ না জানালে অকৃতজ্ঞতা হবে’

প্রথম সময়: নিউজ ডেস্ক | সংবাদ টি প্রকাশিত হয়েছে : ২৯. ফেব্রুয়ারী. ২০২০ | Saturday

‘মুজিব বর্ষে বি এন পিকেও আমন্ত্রণ জানানো হবে সাথে    ভারতকে আমন্ত্রণ না জানালে অকৃতজ্ঞতা হবে’

এই প্রতিবেদন শেয়ার করুন

প্রথম সময় প্রতিবেদক:

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের আজ বলেছেন, মুজিব বর্ষের উৎসবে আমরা বি এন পিকেও আমন্ত্রণ জানাইব সাথে ভারতকে যদি আমরা আমন্ত্রণ না জানাই, এটা হবে অকৃতজ্ঞতা। দুঃসময়ের বন্ধুদের বাদ দিয়ে মুজিব বর্ষের উৎসব আমরা পালন করতে পারি না। কাজেই মুজিব বর্ষের উৎসবে ভারত প্রতিনিধিত্ব করবে, এটা স্বাভাবিক বিষয়।
শুক্রবার বিকালে রাজধানীর হাতিরপুলে ফিকামলি সেন্টারে শহীদ সেলিম-দেলোয়ার দিবসের আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন তিনি।
দিল্লিতে চলমান সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, ভারতের দিল্লি শহরে অভ্যন্তরীণ সংকট চলছে। একথা সত্য পাশের ঘরে আগুন লাগলে সে আগুন প্রতিবেশীর ঘরেও আসে। ভারত আমাদের বিশ্বস্ত প্রতিবেশী। তাদের সাথে আমাদের চমৎকার সম্পর্ক বিরাজ করছে।

তিনি আরো বলেন, দিল্লিতে যে দাঙ্গা চলছে তার জন্য ১৯৭১ সালের সেই রক্তের অক্ষরে লেখা বন্ধুত্বকে আমরা বিসর্জন দিতে পারি না। ভারত যাতে নিজেরা আলোচনা করে তাদের অভ্যন্তরীণ সমস্যা সমাধান করে, এ ব্যাপারে তাদের সরকারের প্রতি আমরা আহ্বান জানাব।

ঢাকার নতুন মেয়রদের উদ্দেশ্যে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ডেঙ্গু মশার কারণে গতবছর কিছুদিন অশান্তিতে কেটেছে। এবারের নতুন মেয়রদের শপথ গ্রহণের সময় শেখ হাসিনা বলে দিয়েছেন এই ভোট যেন মশা খেয়ে না ফেলে। এখন থেকে ডেঙ্গু মশার উপদ্রব হতে পারে। তাই এখন থেকে ঘরে ঘরে প্রস্তুতি নিতে হবে। নিজেরা প্রস্তুত হতে হবে, জনগণকে প্রস্তুত করতে হবে।

শহীদ সেলিম-দেলওয়ার স্মৃতি পরিষদের সভাপতি ড. আব্দুল ওয়াদুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক ও আব্দুর রহমান, মুক্তিযোদ্ধা ঐক্য মঞ্চের সভাপতি রুহুল আমিন মজুমদার, পিরোজপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ কে এম এ আউয়াল প্রমুখ




Archives