প্রিয় শিল্পী মনির খানের গানের জন্মদিন শুভেচ্ছা । ২৫ বছর শুরু

প্রথম সময়: ডেস্ক নিউজ | সংবাদ টি প্রকাশিত হয়েছে : 27. November. 2019 | Wednesday

এই প্রতিবেদন শেয়ার করুন

অনলাইন ডেস্ক:

২৬ শে নভেম্বর ১৯৯৫ সাল! ঠিক ২৪ বছর পূর্বের কথা, প্রথমে ঢাকা শহর পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন শহর-নগর-বন্দর পরবর্তীতে সারা বাংলাদেশের প্রতিটি অলি গলি আর অডিও দোকান গুলোতে বেজে উঠেছিল
”তোমার কোন দোষ নেই,
আমারই তো দোষ আমারই তো ভুল” –

শ্রদ্ধেয় গুরুজি মনির খান ও তাঁর সংগীতের পিতা জাতীয় পুরষ্কারপ্রাপ্ত প্রখ্যাত গীতিকার ও সুরকার শ্রদ্ধেয় মিল্টন খন্দকার দীর্ঘ চার চারটি বছর অক্লান্ত পরিশ্রম ও অধ্যাবসায়ের মাধ্যমে সৃষ্টি করেছিলেন “তোমার কোন দোষ নেই” আ্যলবাম।

বাংলাদেশের ইতিহাসে অনেক আ্যালবামই জনপ্রিয় হয়েছে কিন্ত তার স্থায়ীত্ব ছিল অতি অল্প সময়ের জন্য। সেই গানই গান, যে গান মানুষের মনের কথা বলে, ঘটে যাওয়া ঘটনার কথা বলে, মানুষের অন্তরে স্থান দখল করে এবং আজীবন কাল পর্যন্ত মানুষের বুক থেকে সরেনা। অনেক গানই জনপ্রিয় হয়েছে সেগুলো দীর্ঘ সময়ের জন্য মনে রাখতে চাইলেও মানুষের মনে থাকেনা কিন্ত “তোমার কোন দোষ নেই” আ্যালবামটির আজ ২৪ বছর পূর্ণ হলো তারপরও প্রতিটি মানুষের অন্তরে এই আ্যলবামের ১২টি গান নতুনের মতই মনে হয়।

আজ এই বিশেষ দিনে শ্রদ্ধেয় মনির খানের সাথে আমার মুঠোফোনে কিছু সময় আলাপ করার সুযোগ হয়েছে। আলাপচারিতার এক পর্যায়ে প্রখ্যাত কন্ঠশিল্পী শ্রদ্ধেয় মনির খান “তোমার কোন দোষ নেই” আ্যলবাম প্রসঙ্গে স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে গভীর শ্রদ্ধার সহিত স্মরণ করেছেন মিল্টন খন্দকার ও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান বিউটি কর্ণারের কর্ণধার হাজী নুরুল্লাহ মিলু সম্পর্কে।

তিনি বলেন “আমি সে সময়ে ছিলাম অখ্যাত গায়ক তোমার কোন দোষ নেই আ্যালবাম প্রকাশের ক্ষেত্রে মিলু ভাই এগিয়ে এসেছেন, ছোট ভাইয়ের মত আদর স্নেহ দিয়ে সার্বিকভাবে সহযোগিতা করেছেন। একজন অখ্যাত মনির খানকে বিখ্যাত করতে যা যা করণীয় মিলু ভাই তাই করেছেন তাঁর প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান বিউটি কর্ণার থেকে আ্যালবামটি প্রকাশ করে বিশেষ অবদান রেখেছেন। মিল্টন খন্দকার ও মিলু ভাইয়ের প্রতি আমি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। উভয়েই ছাঁয়ার মত পাশে ছিলেন এখনো আছেন। ২৪ বছর আগের সেই তিন “M”
(মনির খান– মিল্টন খন্দকার— মিলু) টার্গেট নিয়ে সংগীতের ক্ষেত্রে এখনো একত্রে পথ চলছেন যেন একই বৃন্তে তিনটি ফুল”।

অ্যালবামটি সংগ্রহে রাখার জন্য তখন মানুষ এক রকম হুমড়ি খেয়ে পড়েছিল। এটি এমন একটি অ্যালবাম, যার প্রতিটি গান মানুষের অন্তরে ও মুখে মুখে ছিল। এখন পর্যন্ত দেশের অডিও ইন্ডাস্ট্রির ইতিহাসে অন্যতম জনপ্রিয় ও ব্যাবসা সফল অ্যালবাম ”তোমার কোন দোষ নেই”। শ্রদ্ধেয় মনির খান ইন্ডাস্ট্রিকে দেখিয়েছিলেন এক নতুন সম্ভাবনার স্বপ্ন। প্রায় একাই ইন্ডাস্ট্রিকে টেনেছেন দুই দশকেরও বেশি সময়। এখনো তিনি তরুনদের নিয়ে অবিরাম স্বপ্ন দেখেন।

তিনি তাঁর অবস্থান হতে ইন্ডাস্ট্রিতে একচেটিয়া রাজত্ব কায়েম করে হয়েছেন বাংলা গানের
” জন-গণ নন্দিত কণ্ঠশিল্পী”। যার সীকৃতি সরূপ অর্জন করেছেন পর পর তিনবার জাতীয় পুরষ্কার সহ ছোট বড় অসংখ্য পুরষ্কার। তাঁর অজস্র জনপ্রিয় গানে সমৃদ্ধ হয়েছে বাংলা সংগীতের ভান্ডার। গুরুজি মনির খান সংগীত জীবনের এত গুলো বসন্ত অতিক্রম করবার পরেও তাঁর শুরুর দিকে গাওয়া এবং বর্তমানে গাওয়া গান গুলোর মাঝে খুব বেশি পার্থক্য খুঁজে পাইনা। বাংলাদেশের ১৬ কোটি মানুষের দৃষ্টিতে তিনি বাংলা গানের জীবন্ত কিংবদন্তী।

আজ অডিও ইন্ডাস্ট্রির ঐতিহাসিক এ্যালবাম
”তোমার কোন দোষ নেই” এর ২৪ তম জন্মদিন !!!
শ্রদ্ধেয় গুরুজি মনির খান বেঁচে থাকুক ভক্ত-শ্রোতাদের অন্তরে অনন্তকাল এই শুভ কামনা করছি 🙂

শুভ জন্মদিন ”তোমার কোন দোষ নেই”

অ্যাডমিন_প্যানেল।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ১৪৭ বার




Archives