ঢাকা দক্ষিণে বিএনপির টিম লিডার মোশাররফ, উত্তরে ব্যারিষ্টার মওদুদ

প্রথম সময়: ডেস্ক নিউজ | সংবাদ টি প্রকাশিত হয়েছে : 05. January. 2020 | Sunday

এই প্রতিবেদন শেয়ার করুন

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট:

ঢাকা: ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নির্বাচন পরিচালনায় দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন ও ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদকে দায়িত্ব দিয়েছে বিএনপি। খন্দকার মোশাররফ হোসেন ঢাকা দক্ষিণ এবং মওদুদ আহমদ ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচন পরিচালনা কমিটির নেতৃত্বে দেবে
শনিবার (৪ জানুয়ারি) রাতে গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে স্থায়ী কমিটির বৈঠকের পর আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীল এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘ঢাকা সিটি নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য আমরা দুইটি নির্বাচন পরিচালনা কমিটি করেছি। দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আহবায়কের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনকে। সমন্বয়ক থাকবেন দলের স্থায়ী কমিটির মির্জা আব্বাস এবং ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু। তাদের সঙ্গে আরও থাকবেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম, যুগ্ম মহাসচিব হাবিব-উন-নবী-খান সোহেল, ঢাকা দক্ষিণ বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাশার।’

‘ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচন পরিচালনায় আহবায়ক থাকবেন ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। সমন্বয়ক থাকবেন গয়েশ্বর চন্দ্র রায় এবং বেগম সেলিমা রহমান। এই দুইটি নির্বাচন পরিচালনা কমিটি হবে ২১ সদস্যের। দুই কমিটির পুরো সদস্যের তালিকা পরে গণমাধ্যমকে জানানো হব‘— বলেন মির্জা ফখরুল
তিনি বলেল, ‘এই নির্বাচন কমিশন একটি অযোগ্য প্রতিষ্ঠান। তারা এখন পর্যন্ত একটা নির্বাচনও সুষ্ঠুভাবে করতে পারেনি। তারপরও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলনের অংশ হিসেবে আমরা নির্বাচনে অংশ নিচ্ছি। কারণ, লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি হিসেবে আমাদের নির্বাচনে থাকা উচিত বলে আমরা মনে করি।’

ফখরুল বলেন, ‘নির্বাচন কমিশনকে আমরা চিঠি দেব। নির্বাচন ‍সুষ্ঠু করার জন্য আমাদের প্রস্তাব ও দাবি-দাওয়া থাকবে চিঠিতে। পুলিশের মহাপরিদর্শক ও ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনারকে নির্বাচন সুষ্ঠু করার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে এবং নিরপেক্ষভাবে সংবাদ প্রচারের জন্য গণমাধ্যমগুলোতেও আলাদা আলাদা চিঠি দেওয়া হবে।’

বৈঠকে ইভিএম নিয়ে আলোচনা হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমরা ইভিএম প্রত্যাখান করেছি। আমরা কখনোই এই মেশিনে ভোট মেনে নেব না। ইভিএমের ওপর জনমত তৈরির জন্য আমরা বিভিন্ন কর্মসূচি নেব। এ বিষয়ে রোববার বিকেলে বিএনপি সংবাদ সম্মেলন করবে।’

বৈঠকে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ছাড়াও ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, ড. মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী ও ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া স্কাইপের মাধ্যমে লন্ডন থেকে বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৮১ বার




Archives