বাংলাদেশের নারায়ণগঞ্জের মসজিদে বিস্ফোরণ: ১১ জন নিহত, বাকীদের অবস্থাও আশঙ্কাজনক

প্রথম সময়: নিউজ ডেস্ক | সংবাদ টি প্রকাশিত হয়েছে : ০৫. সেপ্টেম্বর. ২০২০ | শনিবার

বাংলাদেশের নারায়ণগঞ্জের মসজিদে বিস্ফোরণ: ১১ জন নিহত, বাকীদের অবস্থাও আশঙ্কাজনক

এই প্রতিবেদন শেয়ার করুন

প্রথম সময় অনলাইন ডেস্ক:

নিহতদের জানাজাসহ শেষকৃত্যের প্রস্তুতি চলছে নারায়ণগঞ্জে ঢাকায় শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউটের প্রধান সমন্বয়ক ডা: সামন্ত লাল সেন বলছেন, গুরুতর আহত বাকী ২৬ জনের অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

“সকাল পর্যন্ত মারা গেছে ১১ জন। কিন্তু যারা এখনো বেঁচে আছে তাদের অবস্থাও খুব জটিল। অনেকেরই শ্বাসনালী পুড়ে গেছে। আমরা আপ্রাণ চেষ্টা করছি। প্রধানমন্ত্রীও কিছুক্ষণ আগে খোঁজ নিয়েছেন ও নির্দেশ দিয়েছেন সম্ভাব্য সব কিছু করতে। আমরা সেটাই চেষ্টা করছি,” মিস্টার সেন বলছিলেন বিবিসি বাংলাকে।
ঢাকার কাছের শিল্প শহর নারায়ণগঞ্জের একটি মসজিদে শুক্রবার রাত সাড়ে আটটার দিকে বিস্ফোরণের পর আগুন ধরে গেলে এসব মানুষ গুরুতর অগ্নিদগ্ধ হন।
স্থানীয় একজন পুলিশ কর্মকর্তা বিবিসি বাংলাকে জানান, নারায়ণগঞ্জের পশ্চিম তল্লা এলাকার বায়তুস সালাত মসজিদে এই দুর্ঘটনা ঘটে।
বিস্ফোরণে অন্তত দুটি এসি পুড়ে গেছে ও জানালার কাঁচ উড়ে যায়। এরপর মসজিদে আগুন ধরে যায়।
এশার নামাজ পড়ার জন্য মসজিদে রাতে শতাধিক মুসল্লি এসেছিলেন। নামাজ শেষে তাদের অনেকে তখনো মসজিদেই ছিলেন। ঠিক তখনই বিস্ফোরণ হয়।
মসজিদটির ইমাম ও মুয়াজ্জিনসহ গুরুতর অগ্নিদগ্ধ ৩৭ জনকে জরুরী ভিত্তিতে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইন্সটিটিউটে নিয়ে আসা হয়।

নারায়ণগঞ্জের দমকল বাহিনীর উপ পরিচালক আবদুল্লাহ আল আরেফিন বিবিসিকে জানিয়েছেন, মসজিদের ভেতরে গ্যাস জমে গিয়ে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে তারা সন্দেহ করছেন।

বিবিসি বাংলাকে তিনি জানিয়েছিলেন যে, মসজিদটির মেঝের নিচ দিয়ে গ্যাসের পাইপ গেছে। সেই পাইপে ফুটো হয়ে মসজিদের ভেতরে হয়তো অনেক গ্যাস জমে ছিল। এই অবস্থায় কেউ ভেতরে ইলেকট্রিক সুইচ অন করার সঙ্গে সঙ্গে বিস্ফোরণ ঘটেছে। সেখান থেকে দ্রুত আগুন ছড়িয়ে গেছে। তারপর মসজিদের এয়ার কন্ডিশনারগুলোও বিস্ফোরিত হয়েছে।

তিনি বলেন, মসজিদের মেঝের নিচ দিয়ে কীভাবে গ্যাসের পাইপ গেল, সেটা একটা বড় প্রশ্ন। এগুলো তদন্ত করে দেখা হবে।

তিনি বলেন, স্থানীয় অনেক মানুষ জানিয়েছেন, মসজিদের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় তারা প্রায়ই গ্যাসের গন্ধ পেতেন।

দমকল কর্মীরা গিয়ে মসজিদের মেঝের নীচ দিয়ে যাওয়া গ্যাস লাইন থেকে গ্যাস বেরুতে দেখেন। তারা গ্যাস লাইনটি বন্ধ করে দেন।বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার কাছের শিল্প শহর নারায়ণগঞ্জের একটি মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় আজ সকাল পর্যন্ত এগার জন মারা গেছে।

এদিকেএ ঘটনা তদন্তের জন্য আলাদা করে তদন্ত কমিটি গঠন করেছে ফায়ার সার্ভিস, তিতাস গ্যাস ও জেলা প্রশাসন




Archives