যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দায়িত্ব পালনে অক্ষম হলে যা হবে

প্রথম সময়: নিউজ ডেস্ক | সংবাদ টি প্রকাশিত হয়েছে : ০৩. অক্টোবর. ২০২০ | শনিবার

যুক্তরাষ্ট্রের  প্রেসিডেন্ট  ডোনাল্ড ট্রাম্প দায়িত্ব পালনে অক্ষম হলে যা হবে

এই প্রতিবেদন শেয়ার করুন

sharethis sharing buttonফিচার ডেস্ক

শুক্রবার করোনাভাইরাস পরীক্ষায় পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন বলে টুইট বার্তায় জানান মার্কিন প্রেসিডেন্ট

ডোনাল্ড ট্রাম্প। ফলে নিয়ম অনুযায়ী কোয়ারেনটাইনে যেতে হয়েছে তাকে। ৭৪ বছর বয়সী ট্রাম্পের বয়স বিবেচনায় তিনি ঝুঁকির মধ্যে রয়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে। তবে শুক্রবার হোয়াইট হাউজের তরফ থেকে জানানো হয়েছে— মৃদু উপসর্গে ভুগছেন প্রেসিডেন্ট

যদি মার্কিন প্রেসিডেন্টের শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হয় এবং তিনি দায়িত্ব পালনে অক্ষম হয়ে যান তবে কী হবে? ইতিমধ্যে এমন প্রশ্ন উঠেছে। উল্লেখ্য, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধানের ২৫তম সংশোধনীর তৃতীয় অনুচ্ছেদ অনুযায়ী ডোনাল্ড ট্রাম্প চাইলে অক্ষমতার কারণে লিখিত ঘোষণা দিয়ে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নিতে পারেন। এমন পরিস্থিতিতে ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স হবেন ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট। এমন পরিস্থিতে ডোনাল্ড ট্রাম্প মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে তার স্বপদেই বহাল থাকবেন।

তবে, যদি অসুস্থতার কারণে ডোনাল্ড ট্রাম্প দায়িত্ব পালনে অক্ষম হয়ে পড়েন এবং তিনি লিখিত আকারে অক্ষমতা প্রকাশ করতে ব্যর্থ হোন বা করতে না চান, তবে তাকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিতে পারবে তার মন্ত্রীসভা। মন্ত্রীসভা প্রেসিডেন্টকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিতে চাইলে অনুসরণ করতে হবে মার্কিন সংবিধানের ২৫তম সংশোধনীর চতুর্থ অনুচ্ছেদ। তবে যুক্তরাষ্ট্রে এ অনুচ্ছেদ প্রয়োগের কোনো নজির নেই।

এর আগে তৃতীয় অনুচ্ছেদ প্রয়োগের নজির রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। ১৯৮৫ সালের ১৩ জুলাই প্রেসিডেন্ট রোনাল্ড রিগ্যান মাত্র ৮ ঘণ্টার জন্য এ অনুচ্ছেদের সুযোগ নিয়েছিলেন। সে বার তিনি তার ভাইস প্রেসিডেন্ট এইচ ডব্লিউ বুশের কাছে কয়েক ঘণ্টার জন্য ক্ষমতা হস্তান্তর করেছিলেন। সকাল ১১ টা ২৮ মিনিট থেকে সন্ধ্যা ৭ টা ২২ মিনিট পর্যন্ত ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন বুশ। উল্লেখ্য, সন্ধ্যা ৭টা ২২ মিনিটে প্রেসিডেন্ট রিগ্যান আরেক চিঠির মাধ্যমে তিনি দায়িত্ব পালনে সক্ষম বলে ঘোষণা দিয়েছিলেন।

পরবর্তী দুই নজির প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশের আমলে।  ২০০২ সালের ২৯ জুন তৎকালীন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশ তার ভাইস প্রেসিডেন্ট ডিক চেনির হাতে কয়েক ঘণ্টার জন্য ক্ষমতা হস্তান্তর করেছিলেন। সকাল ৭ টা ৯ মিনিট থেকে সকাল ৯ টা ২৪ মিনিট পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন ডিক চেনি।

এছাড়া ২০০৭ সালের ২১ জুলাই তিনি ফের একবার চিকিৎসা সংক্রান্ত কারণে ডিক চেনির হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করেন। ডিক চেনি ওইদিন সকাল ৭টা ১৬ মিনিট থেকে সকাল ৯ টা ২১ মিনিট পর্যন্ত ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

তৃতীয় অনুচ্ছেদের নজির থাকলেও চতুর্থ অনুচ্ছেদের প্রয়োগ করে প্রেসিডেন্টকে অক্ষম ঘোষণা করে দায়িত্ব থেকে অপসারণের নজির নেই। এ অনুচ্ছেদের অধীনে প্রেসিডেন্টকে অক্ষম ঘোষণা করতে হলে ভাইস প্রেসিডেন্ট ও মন্ত্রীসভার বেশিরভাগ সদস্য বা অনুরূপ অন্য সভা কংগ্রেসের উচ্চ ও নিম্নকক্ষকে অবহিত করবেন এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট দায়িত্ব নেবেন। তবে ভাইস প্রেসিডেন্ট দায়িত্ব নিলেও ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে উভয়কক্ষ সভায় বসে সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্যদের সম্মতির  ভিত্তিতে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।




Archives