ইতালীতে ফ্রান্স সরকারের মুসলিম বিদ্বেষি কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে মুসলিম কমিউনিটির প্রতিবাদ সভা।

প্রথম সময়: ডেস্ক নিউজ | সংবাদ টি প্রকাশিত হয়েছে : ৩১. অক্টোবর. ২০২০ | শনিবার

ইতালীতে ফ্রান্স সরকারের মুসলিম বিদ্বেষি কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে মুসলিম কমিউনিটির প্রতিবাদ সভা।

এই প্রতিবেদন শেয়ার করুন

রিপোর্টঃ- দৈনিক ইল ধুমকেতু রোম ইতালি,

ইতালীতে ফ্রান্স সরকারের মুসলিম বিদ্বেষি কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে মুসলিম কমিউনিটির প্রতিবাদ সভা ও এম্বাসাডর বরাবর স্মারক লিপি প্রদান।
শেয়ার করে বিশ্বব্যপি ছড়িয়ে দিন।
গত ৩০-১০-২০২০খৃঃ শুক্রবার ইতালীতে বসবাসরত মুসলিম কমিউনিটি ফ্রান্স সরকারের মুসলিম বিদ্বেষি বক্তব্য ও রাসূল (সাঃ) এর ব্যঙ চিত্র প্রচারের প্রতিবাদে এক প্রতিবাদ সভার ডাক দেয়া হয়। সভার স্থান নির্বাচন করা হয় ইতালীর রাজধানী রোমে অবস্থিত ফ্রান্স দূতাবাসের সন্নিকটে। মুলত আজকের এই প্রতিবাদ সভার ডাক দেন ইতালীতে বসবাসরত বাংলাদেশ মুসলিম কমিউনিটি।
দুপুর ১৩ঃ৩০মি. শুরু হওয়া প্রতিবাদ সভা ও বিক্ষোভ চলে একটানা বিকাল ১৬ঃ৩০মি. অবধি। সভার শুধুতেই অনুষ্ঠানের উদ্ভোদন করেন বর্তমান বাংলাদেশ সমিতির সভাপতি জনাব হাসানুজ্জামান কামরুল সাহেব, তার পরেই প্রতিবাদ সভা ও কর্মসূচী সম্পর্কে বিষাদ বিবরণ দেন বাংলাদেশ সমিতির সাবেক সভাপতি ও ধুমকেতু সামাজিক সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা জনাব নূরে আলম সিদ্দিকী বাচ্চু। জনাব নূরে আলম সিদ্দিকী বাচ্চু’র বিক্ষোভের দিকনির্দেশনা দেয়ার পরই বক্তব্য প্রদান করেন বাংলাদেশ সমিতির প্রথম নির্বাচিত সভাপতি জনাব কে,এম লোকমান হোসেন। এরপরই নিরাপত্তা রক্ষীদের সম্মূখে খোলা আকাশের নিচে আযান দিয়ে জুমা’র নামাজের আয়োজন করা হয়, সুমধুর কন্ঠে আযান পরিবেশন করেন বাংলাদেশ সমিতির ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক হাফেজ ফয়সাল আহমেদ,আযানের সময়ে যেনো মনে হলো ক্ষনিকের জন্য ব্যস্ত রোম থমকে গিয়েছে আযানের সুমধুর শুরে। জুমা’র নামাজ পরিচালনা করেন রোম মসজিদের খতিব আলহাজ্ব হাফেজ মাওলানা মিজানুর রহমান, নামাজের পরে সকল মুসলিম উম্মাহ্’র জন্য বিশেষ দো’য়া মোনাজাত করা হয়।
জুমা’র নামাজের পরে পুনরায় শুরু হয় বিক্ষোভ এসময় রোমে বসবাসরত পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের মুসলিম কমিউনিটির নেত্রীবৃন্দ ও শত শত সাধারণ মুসলমান নানাবিধ লেখাযুক্ত প্লে কার্ড বা ফেস্টুন নিয়ে সভায় হাজির হন। নানারকম শ্লোগানে শ্লোগানে তারা ক্ষোভ প্রকাশ করেন এবং প্রতিবাদ জানান। বিক্ষোভ চলাকালীন সময়ে সভার সঞ্চালনা করেন হাফেজ আব্দুল আহাদ সাহেব এবং সঞ্চালনার বিভিন্ন দিকনির্দেশনা প্রদান বিশিষ্ট আইনঅজ্ঞ জনাব মুক্তার হোসেন মার্ক। একে একে বক্তব্য প্রদান করেন স্থানীয় (ইতালীয়) মুসলিম কমিউনিটির বিভিন্ন নেত্রীবৃন্দ ও ইতালীয় খৃষ্টান কমিউনিটির সাধারণ সম্পাদক মি. পানদোরো। মি. পানদোরো তার বক্তব্যে বলেন ফ্রান্স সরকারের মুসলিম বিদ্বেষি কর্মকাণ্ড ও অস্প্রদায়িক বক্তব্য ইতালীয় খৃষ্টান কমিউনিটি সমর্থন করে না, তারা ফ্রান্সের ঔদ্ধত্যপূর্ন বক্তব্য সম্পূর্ণভাবে প্রত্যাখান করেন এবং প্রতিবাদ সভার সাথে ইতালির খৃষ্টান কমিউনিটি একাত্মতা প্রকাশ করেন। সভায় বাংলাদেশের প্রায় সকল বৃহত্তর সমিতি, আঞ্চলিক সমিতি ও রাজনৈতিক সংগঠনের নেত্রীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
আজকের প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ সভায় ধুমকেতু সামাজিক সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা জনাব নূরে আলম সিদ্দিকী বাচ্চু সাহেবে একটি সুন্দর মানসিক দিক সকালের নজর কাড়েঁ। সেটি হলো গত কয়েকদিন পূর্বে ধুমকেতুকে সন্ত্রাসী সংগঠনের তাকমা লাগানোর চেষ্টারত জনাব ছোটন সাহেবকে নূরে আলম সিদ্দিকী বাচ্চু সাহেব জুমার খুৎবা স্থানীয় ভাষায় পাঠ করতে আহ্বান জানান। এ বিষয়ে জনাব নূরে আলম সিদ্দিকী বাচ্চু সাহেবের নিকট জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, যে যার মতো ব্যক্তিগত মত প্রকাশের স্বাধীনতা রাখে। কিন্তু আজকের সমাবেশ বিশ্ব মুসলিম উম্মাহ্’র সকলের তাই তিনি কোন ব্যক্তি আক্রমণ নিয়ে কথা বলতে অনাগ্রহ প্রকাশ করেন।
দূতাবাসের সম্মূখে পিয়াচ্ছা যেনো জনসমুদ্রে রুপান্তর হয়, আল্লাহু আকবর আল্লাহু আকবর ধ্বনিতে ক্ষনে ক্ষনে প্রকম্পিত হয়ে উঠে পুরো পিয়াচ্ছা। ঘড়ির কাঁটা বিকেল চারটা ছুঁই ছুঁই পুনরায় আযান দিয়ে আছরের নামাজ জামাতে আদায় করা হয় এবং বাদ আছর ইমামগন ও কমিউনিটির নেত্রীবৃন্দ স্মারক লিপি নিয়ে ফ্রান্সের দূতাবাসে গমন প্রাক্কালে সমাবেশের মুলতবি ঘোষণা করেন।




Archives