মাকে বোজা মনে করে বাঁশ বাগানে ফেলে আসা ৩ সন্তান আটক

প্রথম সময়: ডেস্ক নিউজ | সংবাদ টি প্রকাশিত হয়েছে : ২৯. সেপ্টেম্বর. ২০১৮ | শনিবার

এই প্রতিবেদন শেয়ার করুন

সোহাগ সামীঃ

মাকে বাঁশ বাগানে ফেলায় ৩ সন্তান আটক
নড়াইলে পরিবারের ‘বোঝা’ মনে করে অশীতিপর মা পুজোলী বেগমকে বাঁশ বাগানে ফেলে দেয়ার ঘটনায় তার ৩ ছেলে-মেয়েকে আটক করেছে পুলিশ।
বৃহস্পতিবার রাতে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।
আটকরা হলেন, পুজোলী বেগমের বড় ছেলে ডাহু শেখ, ছোট ছেলে রাবু শেখ ও বড় মেয়ে কুলসুম বেগম।
মেঝ ছেলে বাবু শেখ ও তার স্ত্রীকে আটকে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।
নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার লক্ষ্মীপাশা ইউনিয়নের কুচিয়াবাড়ী গ্রামের পুজোলী বেগমকে (৯০) গত ২৬ সেপ্টেম্বর রাতে মেঝ ছেলে বাবু শেখ ও তার স্ত্রী মিলে রাস্তার পাশের বাশঁ বাগানে ফেলে রেখে আসেন।
পরে প্রতিবেশীরা উদ্ধার করে তাকে ছোট ছেলের রাবু শেখের পরিত্যক্ত টিনের ঘরের বারান্দায় রাখার ব্যবস্থা করেন।
পুজোলী শেখ কুচিয়াবাড়ি গ্রামের মৃত সামাদ শেখের স্ত্রী। ৫ সন্তানের জননীর এমন করুণ অবস্থা ফেসবুকে ভাইরাল হওয়ার পর পুলিশ নড়েচড়ে বসে। ঘটনাস্থলে গিয়ে পুজোলী বেগমের খোঁজখবর নেয়।

তবে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তার ছেলে-মেয়েরা সটকে পড়েন।

এদিকে, লোহাগড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সৈয়দ ফয়জুল আমির লিটু প্রথম সময়কে বলেন পুজোলী বেগমের ভরণ-পোষণসহ যাবতীয় দায়িত্ব নিয়েছেন।

তিনি প্রাথমিকভাবে তাকে ৫ হাজার টাকা সহযোগিতা করেন। এখন থেকে প্রতিমাসে ৩ হাজার টাকা করে দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ২১৯ বার







Archives