ঢাকা থেকে ব্যবসায়ীর ১৭ লাখ টাকা নিয়ে  উধাও কাজের লোক

প্রথম সময়: ডেস্ক নিউজ | সংবাদ টি প্রকাশিত হয়েছে : ১৫. ফেব্রুয়ারি. ২০১৯ | শুক্রবার

এই প্রতিবেদন শেয়ার করুন

প্রথম সময় ডেস্কঃ

 

ব্যবসায়ী  টাকা নিয়ে  উধাও  ঢাকা ফকিরাপুলের এক প্রতিষ্ঠানে  বিশ্বস্থ কাজের লোক   আব্দুল কাইয়ুম দুলাল পিতা ওবায়দুলহক গ্রাম চরহাজারী থানা কোম্পানীগঞ্জ নোয়াখানী গত  ২ ফেব্রয়ারি  এই ঘটনা ঘটে       কাজ করছেন  দিঘ্যদিন  যাবতকাজ করা   অবস্থায়  ব্যবসা ভাল যাচ্ছেন বলে   বিদেশ যাবার আশায় দোকান বিক্রি করে দেন প্রতিষ্ঠানের মালিক ।   বিক্রি দেওয়া টাকা আব্দুল কাইয়ুম কে দিয়ে ব্যংকে জমা দিতে পাঠালে সে ব্যাংকে ১৭ লাখ ১৮ হাজার টাকা জমা না দিয়ে সে নিজেই প্রতিষ্ঠিত র হইবার

উদ্যাশে টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়।  টাকা যখন ব্যাংকে জমা  হয়নি দেখে মালিক  তাকে খোজাখুজি করে  না পেয়ে  সাথে সাথে মতিঝিল থানায়  সাধারন ডাইরি করে  জি ডি নাম্ব্বার ৩২৮  । ২  দিন পরে   মালিকের মোবাইলে সে কল দিয়ে নাটক সাজিয়ে  চিনতাই র অভিনয় করে কথা বলে ঢাকার কোনএক স্থান থেকে   তাকে মেরে টাকা নিয়া গিয়েছে বলে দাবি করে । বিষয়টি   টাকার জন্য  তাকে সন্দেহ করে  তাকে জিজ্ঞাসাকরে বুঝিয়ে বললে  পরে সে   মালিকের কষ্ট  দুঃখ  দেখে নিজে স্বিকার করে বলে।  টাকা সব সেই নিয়েছে।   তার মুখের কথা ভিডি ও   রেকডিং  আছে আর ও বহু প্রমান রয়েছে  বলে জানা গেছে।। তারপরে আবার সে বলে তার সাথে মীমনামে চাপায়নবাবগঞ্জের  একটা মেয়ের পরিচয় ছিল গত ২/৩ মাস যাবত মীম নামে মেয়ে  তাকে প্রতিষ্ঠিত করার জন্য বিদেশ নিবে বলে প্রলভন দেখায়। ফলে টাকা নিয়ে  সিলেট গিয়ে  ২ দিন সে খানে কাটায়।  সিলেট থেকে ঢাকায় আসি সে এসব নাটক করে ব্যবসায়ীকে হয়রানি করে  একেরপরে এক  আবার মেয়ের পরিচয় জানার  জন্য সিলেট  যে  হোটেলে ছিল তারা সেখানে যান ।

সিলেট থেকে আসার প র সবাইকে পাকি দিয়ে আবার পালিয়ে যায় আন্দুল কাইয়ুম।  বাংলাদেশ প্রশাসন বাহিনী চোখ পাকি দিয়ে থাকতে পারবে না বলে স্থানীয়দের দাবি  র‍্যাব পুলিশ সহ বিভিন্ন বাহিনী যদি এই ঘটনা গুলি প্রতিরোধে কঠোর প্রযোজনিয় ব্যবস্থা গ্রহন করে তাহলে দেশের   সাধারন ব্যবসায়ীরা  সুন্দর নিরাপদে ব্যবসা চালিয়ে যাবে।মতিঝিল থানার মনির হোসেন প্রথম সময়কে জানান ঘটনা টি ঘটেছে  আমি শুনেছি  আমরা আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য  প্রযোজনিয় ব্যবস্থা নিচ্ছি।

 

 

 

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৭৯ বার







Archives