চিরনিদ্রায় জায়ান ১৯ তম শহীদ

প্রথম সময়: ডেস্ক নিউজ | সংবাদ টি প্রকাশিত হয়েছে : ২৪. এপ্রিল. ২০১৯ | বুধবার

এই প্রতিবেদন শেয়ার করুন

 

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক |

 

শ্রীলঙ্কায় বোমা হামলায় নিহত জায়ান চৌধুরীর (৮) দাফন সম্পন্ন হয়েছে। বুধবার বাদ আসর বনানী কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

এর আগে বনানী চেয়ারম্যান বাড়ি মাঠে তার জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজা পড়ান বায়তুল মোকাররমের ইমাম।

জানাজার আগে আওয়ামী লীগ নেতা ও জায়ানের দাদা শেখ সেলিম বলেন, ১৫ আগস্টে যারা শহীদ হয়েছেন, তার মধ্যে বঙ্গবন্ধুকে টুঙ্গিপাড়ায় নেয়া হয়েছে। বাকি ১৮ জনকে বনানী কবরস্থানে দাফন করা হয়। সে ১৮ জনের সঙ্গেই ১৯তম শহীদ হিসেবে জায়ানকে দাফন করা হবে।

এর আগে দুপুর ২টা ৪০ মিনিটে ফুফাতো ভাই শেখ সেলিমের বাসায় আসেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় সেখানে এক হৃদয়বিদারক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

জায়ান চৌধুরীর মরদেহ দেখতে তার পরিবার, বাবা-দাদার সহকর্মী-স্বজন সবাই সেখানে আসেন। আত্মীয়স্বজন সবাই কান্নায় ভেঙে পড়েন।

মরদেহ দেখে রাজধানীর বনানীর শেখ সেলিমের বাসা ত্যাগ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বিকেল ৩টা ৫০ মিনিটে শেখ সেলিমের বাসা ত্যাগ করেন প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে দুপুর দেড়টায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছায় জায়ানের মরদেহ। এরপর সেখান থেকে মরদেহবাহী অ্যাম্বুলেন্সটি বনানীর দুই নম্বর রোডের ৯ নম্বর বাসায় এসে পৌঁছায়।

মরদেহের সঙ্গে শেখ সেলিমের স্ত্রী, ছেলে এবং জায়ানের দুই ভাই এসেছেন। তবে আহত স্বামী অর্থাৎ জায়ানের বাবা মশিউল হক চৌধুরীর সঙ্গে রয়ে গেছেন শেখ আমেনা সুলতানা সোনিয়া (জায়ানের মা)।

উল্লেখ্য, রোববার (২১ এপ্রিল) শ্রীলঙ্কায় ভয়াবহ বোমা বিস্ফোরণে সেখানে সপরিবারে বেড়াতে যাওয়া শেখ সেলিমের মেয়ে জামাই মশিউল হক চৌধুরী গুরুতর আহত হন। হামলায় নিহত হয় জায়ান

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ১০৭ বার




Archives