প্রধানমন্ত্রীর আহবান প্রত্যাখান বিএনপির

প্রথম সময়: ডেস্ক নিউজ | সংবাদ টি প্রকাশিত হয়েছে : ২৫. জানুয়ারি. ২০১৯ | শুক্রবার

এই প্রতিবেদন শেয়ার করুন

প্রথম সময়  করেসপন্ডেন্ট।।

প্রধানমন্ত্রীর কথা  আমলে নেয়নি ফখরুল। । দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় ঐক্য’র আহ্বান এবং ‘সব বিরোধীদল’-কে সংসদে যাওয়ার আহ্বান প্রত্যাখান করেছে বিএনপি।

শুক্রবার (২৫ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে দেওয়া প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের পর বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সারাবাংলাকে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বলেন, ‘এই নির্বাচনে জনমতের প্রতিফলন ঘটেনি। নজিরবিহীন ভোট ডাকাতির মাধ্যমে তারা ক্ষমতা দখল করেছে— যা বাংলাদেশে ইতিপূর্বে কখনো ঘটেনি।’

‘ভোট ডাকাতির মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করে এখন তারা বিএনপিকে পার্লামেন্টে যাওয়ার আহ্বান জানাচ্ছে জন্যে। আমি মনে করি, জাতির সঙ্গে এটা একটা প্রতারণা এবং জনগণকে বোকা বানানোর প্রচেষ্টা। আমি তার এই আহ্বান প্রত্যাখান করছি’— বলেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, ‘এই মুহুর্তে সংসদ যাওয়ার বা শপথ নেওয়ার প্রশ্নই ওঠে না। কারণ, আমরা ফলাফল প্রত্যাখান করেছি। আমরা পরিষ্কার বলেছি, এ্ নির্বাচন বাতিল করুন, নতুন নির্বাচন দেন। নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে সুষ্ঠু, গ্রহণযোগ্য নির্বাচন দিন। সে নির্বাচনে সবাই অংশগ্রহণ করবে। সেখানে যে ফলাফল আসবে, সেই ফলাফলের ভিত্তিতে সংসদ এবং সরকার গঠন হবে।’

মহাজোটের বিপুল বিজয় সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ব্যাখ্যা প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর এই ব্যাখ্যা প্রমাণ করে তারা আসলে কোনো বিজয় অর্জন করেনি। জনগণের ভোট ডাকাতির মাধ্যমে তারা ক্ষমতা দখল করেছেন।’

তিনি বলেন, ‘জাতীয় ও আন্তর্জাতিক মিডিয়া পরিষ্কার করে বলেছে, নির্বাচন মোটেই গ্রহণযোগ্য হয়নি। এতে জনমতের প্রতিফলন ঘটেনি। ভয়াবহ রকম ভোট ডাকাতি হয়েছে।’

‘সেই নির্বাচনকে কীভাবে আমরা বৈধ নির্বাচন বলব এবং সেই নির্বাচনের ভিত্তিতে গঠিত সংসদে গিয়ে আমরা শপথ নেব’?— প্রশ্ন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের

 

 

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৭৬ বার







Archives