রামগতিতে অপহৃত পাঁচ জেলে উদ্ধার, ৪ জলদস্যু আটক

প্রথম সময়: admin | সংবাদ টি প্রকাশিত হয়েছে : ২৪. ডিসেম্বর. ২০১৭ | রবিবার

এই প্রতিবেদন শেয়ার করুন


আলোকিত নোয়াখালীঃ লক্ষ্মীপুরের মেঘনা নদী থেকে মুক্তিপণ চেয়ে ৫ জেলেকে অপহরণের ১১ ঘণ্টা পর উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার সকালে কমলনগরের মতিরহাট এলাকা থেকে স্থানীয়দের সহায়তায় তাদের উদ্ধার করা হয়। এসময় বিপুল পরিমাণ অস্ত্রসহ ৪ জলদস্যুকে আটক করা হয়েছে। উদ্ধারকৃত জেলেরা হলো- স্থানীয় কামাল মাঝি, রুবেল মাঝি, আনু মাঝি, বাবুল মাঝি এবং জুয়েল।

আটককৃতরা হলো- সদর উপজেলার মধ্য চররমনী এলাকার জলদস্যুদের প্রধান আবদুল বারেকে ছেলে শাহআলম, নুর আহম্মদের ছেলে জামাল, রহমত আলী আকনের ছেলে তারেক ও সেকান্তর আলী মাতব্বরের ছেলে শীপন।

এর আগে শনিবার রাত ৮টার দিকে রামগতির আলেকজান্ডার এলাকার মেঘনা নদী থেকে ৫ জেলে অপহরণ করে জলদস্যুরা। ওইদিন রাতেই জেলেদের স্বজন ও মহাজনদেরকে ফোন ও বিকাশ নাম্বার দিয়ে প্রত্যেকের কাছ থেকে ১ লাখ টাকা করে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে তারা।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, শনিবার রাত ৮ টার দিকে রামগতির আলেকজান্ডার মেঘনা নদীতে জেলেরা মাছ ধরতে যায়। রাত প্রায় ৯টার দিকে হঠাৎ জলদস্যু শাহআলম মাঝির নেতৃত্বে ৮/১০ জন জলদস্যু জেলেদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এবং জেলেদের মাছ লুট করে নিয়ে যায়। এ সময় তাদের অস্ত্রেরমুখে জিম্মি করে ট্রলারের পাটাতনের নিচে চাপা দিয়ে রাখে। সকালে লুট করা মাছ মতিহারহাট মাছঘাটে বিক্রি করতে গেলে স্থানীয় জনতা তাদের আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে।

কমলনগর থানার ওসি আকুল বিশ্বাস জানান, আটককৃতদের বিরুদ্ধে থানায় মামলাসহ তাদের আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। পালিয়ে যাওয়া অন্যদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৪২০ বার







Archives