নোয়াখালীতে স্পিরিট পানে ৬ জনের মৃত্যু, আটক ২

প্রথম সময়: ডেস্ক নিউজ | সংবাদ টি প্রকাশিত হয়েছে : ২৮. সেপ্টেম্বর. ২০১৯ | শনিবার

এই প্রতিবেদন শেয়ার করুন

প্রথম সময় ডেস্ক;

 

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় হোমিও দোকানের স্পিরিট পান করে ৬ জনের অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আরও অন্তত ৫ জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল ও ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে। পুলিশ স্পিরিট বিক্রেতার ডা. জায়েদ ও তার ছেলে পিয়মকে আটক করেছে।

শনিবার ভোরে ডা. জায়েদকে আটক করেছে পুলিশ। এর আগে শুক্রবার (২৭ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে রাত পর্যন্ত এ মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, বসুরহাট পৌরসভা ৮নং ওয়ার্ড বাঁশ ব্যাপারী বাড়ীর মৃত এছাক মিয়ার ছেলে নুরনবী মানিক (৫২), একই এলাকার মৃত আবদুর রহমানের ছেলে লিটন (৫০), খিরুদ মহাজন বাড়ীর মৃত অনিল কুমার দে’র ছেলে রবি লাল (৫৫), সিরাজপুর ৫নং ওয়ার্ডের মতলব মিয়ার বাড়ীর মৃত রইসল হকের ছেলে সবুজ (৪৫), একই এলাকার ২নং ওয়ার্ডের মোহাম্মদ নগর এলাকার মহিন উদ্দিন ড্রাইভার (৪০) ও চরকাঁকড়া ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের মৃত আবদুল আজিজের ছেলে আবদুল খালেক (৬৫)।

স্থানীয়দের অভিযোগ, বসুরহাট বাজারের পান বাজার সংলগ্ন ‘রফিক হোমিও হল দোকান’ থেকে স্পিরিট নিয়ে  কোমল পানীয়ের সঙ্গে মিশিয়ে পান করায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পুলিশ জানার আগেই নিহত ৩ জনের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। তবে আরও ৩জনের দাফন এখনো সম্পন্ন হয়নি। পরে পুলিশ খবর পেয়ে রবি লাল রায়ের লাশ উদ্ধার করে।

স্থানীয়দের অভিযোগ, এ দোকানের মালিক জায়েদ ও তার ছেলে প্রিয়ম দীর্ঘ অনেক বছর অনেকটা খোলামেলা ভাবে এ হোমিও হল দোকানে স্পিরিটসহ বিভিন্ন নেশা জাতীয় দ্রব্য বিক্রি করে আসছে। স্পিরিট বিক্রির টাকায় কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা ভূমি অফিসের পাশে ফাউন্ডেশন দিয়ে বহুতল ভবন নির্মাণ করেছে ডা. জাহেদ।

নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ডা. সৈয়দ  মহি উদ্দিন আবদুল আজিম  জানান, নিহত মানিক ও  রবি লালের মৃত দেহ থেকে প্রাথমিক ভাবে স্পীটের কোন আলামত পাওয়া যায়নি। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে বলা যাবে কি কারণে তারা মারা গেছে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আরিফুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ নিহতদের বাড়ি পরিদর্শন করেছে। একজনের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৫৬ বার




Archives