আহত ফেরদৌস ও পূর্ণিমা ফিরছে কোম্পানীগঞ্জ থেকে ঢাকায়

প্রথম সময়: ডেস্ক নিউজ | সংবাদ টি প্রকাশিত হয়েছে : ১২. ফেব্রুয়ারি. ২০১৯ | মঙ্গলবার

এই প্রতিবেদন শেয়ার করুন

প্রথম সময় ডেস্ক:

 

নোয়াখালী কোম্পানীগঞ্জের  চরএলাহিতে ‘গাঙচিল’ ছবির শুটিং। সেখানে শুটিং করতে গিয়ে গুরুতর আহত হয়েছেন ছবির নায়ক ফেরদৌস ও নায়িকা পূর্ণিমা। প্রাথমিকভাবে তাদের চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন ছবিটির পরিচালক নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুল।

তিনি বলেন, ‘আজ রোববার সকাল ১০টা নাগাদ দুর্ঘটনাটি ঘটে। বেশ ভালোই আঘাত পেয়েছেন দুজনে। তবে দুশ্চিন্তার কিছু নেই। আপাতত প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। বিকেলে তাদেরকে নোয়াখালী সদর হাসপাতালে নেয়া হবে। এক্স-রে করার পরই জানা যাবে আঘাত কতটা গুরুতর।’

নেয়ামুল জানান, মোটরসাইকেলের একটি শট ছিল। পূর্ণিমা মোটরসাইকেলটি চালাচ্ছিলেন। ফেরদৌস ছিলেন পেছনে বসা। চলন্ত অবস্থায় মোটরসাইকেলের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুজনেই পড়ে গিয়ে আঘাত পেয়েছেন। তাদের শরীরের একাধিক স্থানে ক্ষত সৃষ্টি হয়েছে।

বর্তমানে ফেরদৌস-পূর্ণিমা দুজনেই বিশ্রামে আছেন। বাকিদের নিয়ে ‘গাঙচিল’ ছবির শুটিং চালাচ্ছেন নির্মাতা নেয়ামূল। ৬ ফেব্রুয়ারি থেকে নোয়াখালী জেলার গাঙচিল কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার ৮ নং চর এলাহি ইউনিয়নে এর শুটিং শুরু হয়েছে চলবে ১২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

প্রসঙ্গত, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী

ওবায়দুল কাদেরের উপন্যাস ‘গাঙচিল’ অবলম্বনে একই নামের ছবিটি পরিচালনা করছেন নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুল। ছবিটি প্রযোজনা করছে ইচ্ছেমতো এবং ফেরদৌসের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান নুজহাত ফিল্মস।

‘গাঙচিল’ ছবিতে বিশেষ চরিত্রে দেখা যাবে কলকাতার অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তকে। বাংলাদেশ থেকে এ ছবিতে আরও অভিনয় করছেন আনিসুর রহমান মিলন, তারিক আনাম খান প্রমুখ। এখানে ফেরদৌস একজন সাংবাদিকের চরিত্রে অভিনয় করছেন। আর পূর্ণিমাকে দেখা যাবে এনজিও কর্মী হিসেবে।

ওবায়দুল কাদেরের লিখা উপন্যাসের শুটিং  করতে গিয়ে দূঘটনা  আহত হন তারা  আশা ছিল আরও তিন দিন শুটিং হবে। কিন্তু একটি দুর্ঘটনা সবকিছুই ওলট-পালট করে দেয়। মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ছবির প্রধান দুই অভিনয়শিল্পী ফেরদৌস ও পূর্ণিমার আহত হওয়ার ঘটনায় সাময়িকভাবে শুটিং বন্ধ করে দেন পরিচালক। ভাবছিলেন, সাময়িক বিশ্রাম শেষে আবার শুটিং শুরু করবেন। চিকিৎসকের কড়া নির্দেশ, বেশ কিছুদিন বিশ্রামে থাকতে হবে ফেরদৌস ও পূর্ণিমাকে। শিল্পীদের সুস্থতার কথা ভেবে তাই শুটিং বন্ধ করে দেন পরিচালক নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামূল। আজ সোমবার রাত কিংবা কাল মঙ্গলবার সকালে পরিচালকসহ শিল্পীদের ঢাকায় ফেরার কথা রয়েছে বলে জানা গেছে।

নোয়াখালীর চরমণ্ডলে কয়েক দিন আগে শুরু হয় ‘গাঙচিল’ ছবির শুটিং। শুরুর দিন থেকেই শুটিংয়ে অংশ নেন নায়ক ফেরদৌস ও নায়িকা পূর্ণিমা। তবে গতকাল রোববার শুটিং শুরুর কিছুক্ষণ পরই ঘটে দুর্ঘটনা। চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা মোটরসাইকেল চালানোর সময় স্লিপ কেটে উল্টে গেলে দুর্ঘটনা ঘটে। পেছনে বসা ফেরদৌস ছিটকে রাস্তায় পড়ে যান। এরপর দ্রুত তাঁদেরকে বসুরহাট সেন্ট্রাল হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসাসেবা দেওয়া হয়।

আজ সোমবার সন্ধ্যায় প্রথম আলোর সঙ্গে আলাপে নেয়ামূল বলেন, ‘বুধবার পর্যন্ত শুটিং বাকি ছিল। হঠাৎ করে এই দুর্ঘটনা সব পরিকল্পনা এলোমেলো করে দেয়। এদিকে পূর্ণিমা আপার হাতের ব্যথা বেড়েছে। ফেরদৌস ভাইয়ের অবস্থাও খুব একটা সুবিধার না। তাই ঝুঁকি নিয়ে আর কোনো কাজ করতে চাইনি। দুজনের সুস্থতার পর নতুন পরিকল্পনা করে আবার শুটিং শুরু করব।’

৬ ফেব্রুয়ারি থেকে চরমণ্ডল আর চর এলাহীতে ‘গাঙচিল’ ছবির শুটিংয়ে অংশ নেন ফেরদৌস আর পূর্ণিমা। গতকাল তাঁদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন আনিসুর রহমান মিলন। সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের উপন্যাস ‘গাঙচিল’ নিয়ে ছবিটি নির্মিত হচ্ছে।

 

 

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৮০ বার







Archives